‘সকলের জন্য বাসস্থান’ এর লক্ষ্য পূরণে বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে
নিজস্ব প্রতিনিধিঃ, 07/04/2017, নয়াদিল্লি

প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (গ্রামীণ)-র সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী ২০১৬-র ২০ নভেম্বর তারিখে। গ্রামাঞ্চলে বাসস্থান নির্মাণ সংক্রান্ত এই কর্মসূচিটি গ্রামবাসীদের বিশেষ চাহিদা ও প্রয়োজনের দিকে লক্ষ্য রেখে স্থির করা হয়েছে। বাসস্থান নির্মাণের খরচ বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থানীয়ভাবে সুলভ বিভিন্ন উপকরণ ও ইমারতী দ্রব্য ব্যবহার করে বাসগৃহ গড়ে তোলার কাজে বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে এই যোজনার আওতায়। গ্রামীণ এলাকার চাহিদার দিকে নজর রেখে ঘর-বাড়ির নকশা এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে প্রতিটি বাড়িতে রান্নার জায়গা, শৌচাগার, রান্নার গ্যাস সংযোগের ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ সংযোগ এবং জল সরবরাহের ব্যবস্থা ঐ নকশায় অন্তর্ভুক্ত করা যায়।

এর আওতায় যাঁরা উপকৃত হবেন তাঁরা নিজেদের প্রয়োজন ও চাহিদা অনুযায়ী এই নকশা অনুমোদনও করিয়ে নিতে পারেন।প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (গ্রামীণ) ূপায়ণের কাজে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক ও অসম এখনও পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছে। অন্যদিকে, ইন্দিরা আবাস যোজনার আওতায় অসম্পূর্ণ বাড়িগুলির নির্মাণ কাজ শেষ করার ক্ষেত্রে সাফল্য দেখিয়েছে বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, অসম, ঝাড়খণ্ড, রাজস্থান ও মহারাষ্ট্র এই কটি রাজ্য।

কেন্দ্রীয় পল্লী উন্নয়ন দপ্তর বর্তমান অর্থ বছরে অর্থাৎ, ২০১৭-১৮ সালে ৫১ লক্ষ বাসস্থান গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে। এছাড়াও, এই বছরটিতে অতিরিক্ত ৩৩ লক্ষ বাসস্থান গড়ে তোলার কাজে খুব শীঘ্রই মঞ্জুরি দেওয়া হবে। পরবর্তী অর্থ বছরে অর্থাৎ, ২০১৮-১৯ সালে সমান সংখ্যক বাসস্থান নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে। এর ফলে, ২০১৬-১৯ এই সময়কালে গ্রামীণ বাসস্থান নির্মানের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে ১ কোটি ৩৫ লক্ষ। আগামী ২০২২ সালের মধ্যে সকলের জন্য বাসস্থান’ - এই লক্ষ্যমাত্রা পূরণ নিশ্চিতভাবেই সফল হবে বলে সরকারের আশা।